করোনাজয়ীদেরও দ্রুত আক্রান্ত করতে পারে দেশি স্ট্রেন! নয়া গবেষণায় বাড়ছে আতঙ্ক

1 month ago 17

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: গত জানুয়ারিতেই শুরু হয়ে গিয়েছে টিকাকরণ (Vaccination)। তা সত্ত্বেও সার্বিক ভাবেই দেশের করোনা (Coronavirus) পরিসংখ্যান উদ্বেগজনক হয়ে উঠছে। ভয় দেখাচ্ছে নয়া স্ট্রেন। বিশেষ করে এন৪৪০কে স্ট্রেনকে ঘিরে বাড়ছে আতঙ্ক। গবেষকদের দাবি, এই দেশীয় স্ট্রেন থেকে নতুন করে আক্রান্ত হতে পারেন করোনাজয়ীরাও। সাধারণত একবার করোনায় আক্রান্ত হলে শরীরে তৈরি হয় প্রতিরোধ ক্ষমতা। কিন্তু এই স্ট্রেন সেক্ষেত্রেও অপ্রতিরোধ্য। যা দেখে চিন্তার চওড়া ভাঁজ গবেষকদের কপালে।

অন্ধ্রপ্রদেশের কুর্নুলের মেডিক্যাল কলেজের গবেষকরা সম্প্রতি এক ব্যক্তির সংক্রমণের বিষয়ে গবেষণা করতে গিয়ে দেখেছেন, তিনি দ্বিতীয় বার আক্রান্ত হয়েছিলেন এন৪৪০কে স্ট্রেন থেকেই। তাঁদের দাবি, এই নিয়ে তাঁরা এমন দ্বিতীয় কেসের সন্ধান পেলেন। এই সংক্রান্ত গবেষণাপত্রটি প্রকাশিত হয়েছে রিসার্চ সার্ভার ওএসএফ-এ। ব্রিটেন, দক্ষিণ আফ্রিকার স্ট্রেনের দাপটে ইংল্যান্ড-সহ বহু দেশেই নতুন করে ভয়াবহ আকার ধারণ করেছ সংক্রমণ। সেই স্ট্রেন-আতঙ্কের সচেতনতার মধ্যেই দেশি স্ট্রেনের আতঙ্কও ক্রমেই বাড়ছে। এন৪৪০কে ছাড়াও ই৪৮৪কিউ স্ট্রেনটিও ভাবাচ্ছে গবেষকদের। আসলে দ্রুত নিজেদের চারিত্রিক বৈশিষ্ট্য বদলাচ্ছে করোনা ভাইরাস। এই বদলের ফলে যে নয়া স্ট্রেনগুলি তৈরি হচ্ছে, তার চরিত্র ভাল করে বুঝে নেওয়া দরকার বলে মনে করা হচ্ছে।

[আরও পড়ুন: আম্বানির বাড়ির সামনে বিস্ফোরক ভরতি গাড়ি রাখার দায় নিল জইশ-উল-হিন্দ]

তাহলে কি এই নয়া স্ট্রেনের দাপটেই ফের ঊর্ধ্বমুখী করোনা গ্রাফ? সেকথা অবশ্য এখনই বলছেন না গবেষকরা। কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রক এর কারণ অনুসন্ধান করছে। কয়েকদিন আগে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিও এই নিয়ে বৈঠক করেছেন। সংক্রমণকে নিয়ন্ত্রণ করতে যত দ্রুত সম্ভব এই বিষয়ে পদক্ষেপ করতে চাইছে সরকার। প্রায় দেড় মাস হয়ে গেল কোভিডের (COVID-19) বিরুদ্ধে ভারতে শুরু হয়ে গিয়েছে গণটিকাকরণ। ইতিমধ্যে দেশের মোট ১ কোটি ৪৩ লক্ষ ১ হাজার ২৬৬ জন টিকা নিয়েছেন। কিন্তু তাতেও সংক্রমণ বিশেষ রোখা যাচ্ছে না। বরং নিম্নমুখী সুস্থতার হার ও বাড়তে থাকা অ্যাকটিভ রোগীর সংখ্যা নিয়ে উদ্বেগ থেকেই যাচ্ছে।

[আরও পড়ুন: বক্সারের মতোই সিক্স প্যাক রাহুলের, নেটদুনিয়ায় ভাইরাল ছবি]

Read Entire Article